আহ্বান pdf বই ডাউনলোড

339

আহ্বান

আহ্বান pdf বই ডাউনলোড । দেশের ঘরবাড়ি নেই অনেকদিন থেকেই। পৈত্রিক বাড়ি যা ছিল ভেঙেচুরে ভিটেতে জঙ্গল গজিয়েছে। এ অবস্থায় একদিন গিয়েছি দেশে কিসের একটা ছুটিতে। গ্রামের চক্কোত্তি মশায় বাবার পুরাতন বন্ধু। আমায় দেখে খুব খুশি হলেন।

বল্লেন – কতকাল পরে বাবা মনে পড়লো দেশের কথা?
-প্রণাম করে পায়ের ধুলো নিলাম। বল্লেন – এসো, এসো বেঁচে থাকো, দীর্ঘজীবী হও। বাড়ীঘর করবে না?
আগে সামান্য মাইনে পাই।

-তাতে কি? গ্রামের ছেলে গ্রামে বাস করবে, এতে আর সামান্য মাইনে বেশি মাইনে কি? আমি খড়-বাঁশ দিচ্ছি, চালাঘর তুলে ফেলো, মাঝে মাঝে যাতায়াত করো। আহা নরেশের ছেলে, দেখেও সুখ। ক’দিনই বা আছি। বাস করো গাঁয়ে। আরও অনেকে এসে ধরলে, অন্তুত খড়ের ঘর একটা ওঠাতে হবে।

আরও অনেকে এসে ধরলে, অন্তত খড়ের ঘর একটা ওঠাতে হবে। অনেকদিন পরে গ্রামে এসে লাগছে ভালোই। যাদের বাল্যকালে ছোট দেখে গিয়েছি, তাদের আর চেনা যায় না। যাদের যুবক দেখে গিয়েছিলাম, তারা হয়েছে বৃদ্ধ।

আরও দেখুনঃ এই শুভ্র pdf বই ডাউনলোড

বড় আম বাগানের মধ্যে দিয়ে বাজারের দিকে যাচ্ছি, আমগাছের ছায়ায় একটি বৃদ্ধের চেহারা ভারতচন্দ্র বর্ণিত জরতীবেশিনী অন্নপূর্ণার মত। কোনো তফাৎ নেই। ডান হাতে নড়ি ঠুক্ ঠুক্ করতে করতে বোধহয় বা বাজারের দিকেই চলেছে। বগলে একটা ছোট থলে।

বুড়িকে দেখেই আমি দাড়িয়ে গেলাম। এ ধরণের বুড়িকে দেখে আমার বড় মায়া হয়। – নারী-রূপের এক অপূর্ব পরিণতি।

জিজ্ঞেস করলাম – কোথায় যাবে?
– বাজারে যাবো, বাাবা।
বুড়ি আমায় ভালো না দেখতে পেয়ে কিংবা চিনতে না পেরে ডান হাত উচিয়ে তালু আড়ভাবে চোখের ওপর ধরলো। বলে – কে বাবা তুমি? চেনলাম না তো?

আরও দেখুনঃ বিকেল বেলার গল্প pdf বই ডাউনলোড

-চিনবে না। বাঁড়ুজ্যেপাড়ার নরেশ বাঁড়ুজ্যের ছেলে। আমি অনেকদিন গায়ে আসিনি।
তা হবে বাবা। আমি আগে তো এপাড়া-ওপাড়া যাতাম আসতাম না। তিনি থাকতে অভাব ছেলো না কোন জিনিসের। গোলা-পোরা ধান, গোয়ালপোরা গরু।

নিচে আহ্বান  pdf বই এর স্ক্রিনশট ও ডাউনলোড লিংক দেওয়া হলোঃ

আহ্বান pdf বই ডাউনলোড

প্রকাশকঃ 
বইয়ের ধরণঃ ছোট গল্প
বইয়ের সাইজঃ 3.15 MB
প্রকাশ সালঃ ইং
বইয়ের লেখকঃ বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়

ডাউনলোড সার্ভার-১ঃ Download Now

বই ডাউনলোড করতে কোন সমস্যা হলে অথবা নতুন কোন বইয়ের জন্য রিকুয়েস্ট করতে আমাদের Facebook Page অথবা Facebook Group এ জয়েন করুন